ঢাকা মহানগরী পূর্ব

নৈতিকতা সম্পন্ন মেধাবীর অভাবে জাতি প্রতদিনিই পিছিয়ে যাচ্ছে -শবিরি সভাপতি


তিনি আজ ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী র্পূব শাখা আয়োজতি এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় জপিএি ৫ প্রাপ্ত ছাত্রদরে জন্য সংর্বধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতথিরি বক্তব্যে এসব কথা বলনে। শাখা সভাপতি সোহলে রানা মিঠুর সভাপতিত্বে এবং শাখা সেক্রেটারি ইমাম হোসাইনরে পরিচালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থতি ছিলেন কন্দ্রেীয় দাওয়া র্কাযক্রম সম্পাদক শাহীন আহাম্মদ খান। শিবির সভাপতি বলনে, একটি দশে বা জাতরি সমৃদ্ধি র্অজনরে জন্য যত সম্পদ দরকার সবই আমাদরে আছে। স্বল্প জনসম্পদ ও প্রাকৃতকি সম্পদ নয়িওে একই সময়ে বহু জাতি এগিয়ে গেছে। কন্তিু র্পযাপ্ত প্রাকৃতকি, জন ও মেধা সম্পদ থাকার পরও আমরা পিছিয়ে আছি। ক্ষুর্ধাত মানুষরে হাহাকার আজো মুছে যায়নি। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যরে দাম বড়েছে অকল্পণীয় ভাবে। ফলে দেশের সংখ্যাগরষ্ঠি মধ্যবত্তি ও নিন্মবিত্ত মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। সরকারের রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাটে দায় জনগণরে উপর চাপাতে গ্যাসরে মূল্য বৃদ্ধি করেছে। বিদ্যুতের দাম বাড়ানোরও ঘোষনা দেয়া হয়েছে। এক বিভিষিকাময় অবস্থার মধ্যে জনগণ জীবন যাপন করছে। ফলে প্রতদিনিই জাতিকে র্অথনতৈকি, রাজনতৈকি, সামাজকি ভাবে হতাশা আচ্ছন্ন করেছে। লক্ষণীয় বিষয় হলো যে র্স্বাথান্বেষী ও সুবিদাবাদী শ্রেণী জনগণকে জিম্মি করে নিজেদের আখরে গোছাচ্ছে তারা অনকেই মেধাবী। কন্তিু নৈতিকতাহীন মেধাবী এসব অপর্কমে সুবদিাবাদীদরে র্স্বাথ উদ্ধার হলওে হতাশ ও ক্ষুদ্ধ দশেপ্রমেকি জনগণ। আজকরে মেধাবীদের জনগণরে এই হতাশা মুছে দেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে। তিনি মেধাবীদের উদ্দেশ্যে বলেন দেশ র্দূনীতি আর অপশাসনে গ্রাস করলওে আমরা হতাশ নই। আমাদের বিশ্বাস আজকরে মেধাবীরা র্দূনীতিবাজদের অনুস্বরণ করবে না বরং দেশ পরিচালনার স্থান গুলো মেধা ও নৈতিকতা দিয়ে পূরণ করবে। ছাত্রশিবির জাতিকে মেধা ও নৈতিকতা সম্পন্ন নাগরীক উপহার দিতে বাংলার প্রতিটি জনপদে নিরলস প্রচষ্টো চালিয়ে যাচ্ছে। শুধু যোগ্য নাগরিক নয় বরং দুনিয়া ও আখিরাতে সফল মানুষ গড়তে ছাত্রশবিরিরে প্রচষ্টো অব্যাহত আছে। একটি সমৃদ্ধ দেশ ও সমাজ উপহার না দেয়া র্পযন্ত ছাত্রশিবিরের এই প্রচষ্টো অব্যাহত থাকবে।দুনিয়া ও আখিরাতে সফল একজন মানুষ হিসাবে গড়ে উঠে জাতির প্রত্যাশা পূরণে ছাত্রশিবিরের প্রচেষ্টার সাথে হাত মিলিয়ে সহযোগতিা করতে আমরা মেধাবীদের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।