ঢাকা মহানগরী পূর্ব

ছাত্রশিবির দেশের স্বাধীনতা-র্সাবভৌমত্বের অতন্দ্র প্রহরী -শিবির সভাপতি


তিনি আজ রাজধানীর এক মলিনায়তনে ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী র্পূব আয়োজতি বাছাইকৃত সাথী শিক্ষা বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলনে। শাখা সভাপতি এস এম মিঠুর পরিচালনায় এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক শাহ মুহাম্মদ মাহফুজুল হক। এছাড়াও শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ছাত্রশিবির সভাপতি বলনে, দশেরে র্স্বাথ বিরোধী নানা র্কমকান্ডে জাতি আজ র্সাবভৌমত্ব নিয়ে শঙ্কিত। ২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহের নামে জাতির অতন্দ্র প্রহরী চৌকস সনো র্কমর্কতাদরে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। এখন র্পযন্ত তার সুষ্ঠ বিচার হয়নি। উত্তর মেলেনি অনকে প্রশ্নের। এর মাধ্যমে দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে হুমকরি মুখে ফেলে দেয়া হয়েছে। সীমান্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা দিনদিন নাজুক হয়ে পড়েছে, ফলে জাতিকে প্রতদিনিই সীমান্তে নিরাপরাধ জনগণরে লাশ গুনতে হচ্ছে। সম্প্রতি র্পাশর্বতী দেশের সাথে জাতীয় র্স্বাথ বিরোধী সামরকি চুক্তি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশতি হয়ছে। যা নিয়ে দেশপ্রেমিক সুধীসমাজ ইতমিধ্যইে গভীর শঙ্কা প্রকাশ করছেনে। বিডিআর বিদ্রোহ ও পরর্বতী সময়ে দেশের র্সাবভৌমত্ব বিরোধী সকল অপতৎপরতা একই সুত্রে গাথা এবং দশেকে অর্কাযকর রাষ্ট্রে পরণিত করার দেশ-বিদেশী সুগভীর চক্রান্তরে অংশ বলে মনে করে দেশবাসী। তিনি বলেন, ছাত্রশিবির তার প্রতষ্ঠিা কাল থকেইে দশেরে স্বাধীনতা ও র্সাবভৌমত্ব রক্ষায় অতন্দ্র প্রহরীর ভূমকিা পালন করে যাচ্ছে। আগামীদনিওে দশেরে স্ববাধীনতা রক্ষা, মানুষরে অধকিার রক্ষা ও ছাত্রদরে দাবি আদায়ে ছাত্রশবিরি আপোষহীন ভূমকিা পালন করে যাব।তিনি নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান রেখে বলেনূ, ছাত্রজনতাকে ষড়যন্ত্ররে ব্যপারে সজাগ ও সচতেন করতে হবে। দেশের বিরুদ্ধে যে কোন ষড়যন্ত্র রুখে দিতে প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।